১৯৬৬ সালেই বঙ্গবন্ধুর মনে লাল-সবুজের পতাকা ও জাতীয় সংগীতের ধারণা তৈরি হয় -বাংলা একাডেমির আলোচনা সভায় ড. হারুন-অর-রশিদ

0

২৭.০২.২০১৬

সংবাদ বিজ্ঞপ্তি

   ১৯৬৬ সালেই বঙ্গবন্ধুর মনে লাল-সবুজের পতাকা ও জাতীয় সংগীতের ধারণা তৈরি হয়
                                            -বাংলা একাডেমির আলোচনা সভায় ড. হারুন-অর-রশিদ

একুশের বইমেলা উপলক্ষে বাংলা একাডেমি আয়োজিত মাসব্যাপী আলোচনা সভার অংশ হিসেবে আজ (২৭.২.১৬) তারিখ বিকেল ৪টায় আলোচ্য বিষয় ছিল, ‘৬-দফার ৫০ বছর’।
বিশিষ্ট অর্থনীতিবিদ ড. কাজী খলীকুজ্জামান আহমদ-এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এ সভায় বিশিষ্ট রাষ্ট্রবিজ্ঞানী ও জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের মাননীয় উপাচার্য প্রফেসর ড. হারুন-অর-রশিদ মূল প্রবন্ধ পাঠ করেন। আলোচনা সভায় অংশগ্রহণ করেন আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য নূহ-উল আলম লেনিন, সুভাষ সিংহ রায় ও সাংবাদিক অজয় দাস গুপ্ত। ড. হারুন-অর-রশিদ তাঁর লিখিত প্রবন্ধে বঙ্গবন্ধুর ৬-দফা কর্মসূচি পেশের পটভূমি, প্রচার কৌশল, শাসক ও কায়েমী স্বার্থান্বেষী গোষ্ঠীর প্রতিক্রিয়া, ৬-দফা কর্মসূচির গুরুত্ব ও মর্মকথা বর্ণনা করে বলেন, ‘‘৬-দফা নিছক দফার রাজনীতি ছিল না, এটি ছিল পাকিস্তানি উপনিবেশিক রাষ্ট্রযন্ত্র ভেঙ্গে বাঙালির জাতীয় মুক্তি অর্জনের লক্ষে বঙ্গবন্ধুর প্রণীত স্বাধীনতার মহাসনদ। ১৯৬৬ সালে ৬-দফা প্রণয়নকালেই বঙ্গবন্ধু আমাদের লাল-সবুজের জাতীয় পতাকা ও রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের ‘আমার সোনার বাংলা আমি তোমায় ভালবাসি’ স্বাধীন বাংলাদেশের জাতীয় সংগীত করার বিষয়ে মনস্থির করে ধাপে ধাপে আন্দোলনকে চূড়ান্ত পরিণতি অর্থাৎ ৭১-এর মুক্তিযুদ্ধে পৌঁছান। ‘‘এ সংক্রান্ত বিস্তারিত তথ্য জানার জন্য তিনি সম্প্রতি বাংলা একাডেমি থেকে প্রকাশিত তাঁর বই ‘আমাদের বাঁচার দাবী : ৬-দফার ৫০ বছর’ দেখার পরামর্শ দেন।

ডাউনলোড করুন (Download)


   
(মোঃ ফয়জুল করিম)
পরিচালক (ভারপ্রাপ্ত)
জনসংযোগ, তথ্য ও পরামর্শ দফতর
জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

For security, use of Google's reCAPTCHA service is required which is subject to the Google Privacy Policy and Terms of Use.

I agree to these terms.